সম্পর্ক

অরবিন্দ চক্রবর্তী

যার তার গায়ে রং ছিটাতে নেই, আগুনের হলুদ সে গল্পই বলে।

কাফকা জানেন, ঘা কোন ধরনের শিল্প মাছি কার দাস, কেরানি।

উপদেশক, তোমরা নিশ্চয়ই দেখো, সম্পর্কের গায়ে রং লেগেছে

ছড়িয়ে ছিটিয়ে যাচ্ছে সেতুরচনা করে।

 

গতির প্রাণে রয়েছে

আগন্তুকের আদি অনুরোধ

দেখো দেখো, ঘোড়ার সঙ্গে ঘোটকী নেই

খুরে উড়ছে ছাই

ঘর পুড়েছে সওয়ারের…

 

ফলে, আজ আমরা গতির জাতক…

ব্যথাবন থেকে চুক্তি হোক, হলুদকে যারা রং বলে

ঘা’কে যারা জীবনের অঙ্গ মানে

তাদের পেছনে ছুটবে ঘোটকীহীন রেখা

যার গায়ে রঙ ছিটিয়ে দেবে, সে সুতো ছড়াতে ছড়াতে রচনা করবে রাতুলশোপান।

 

কুস্তিজীবন

কুস্তিখেলার পাশে দাঁড়ানো উত্তেজনা থেকে লেখা হয় একজন মাসল ম্যানের জীবন

এত জল এত রক্ত কোনটাকে একাকার ঘাম বলা হবে বুঝে ওঠার আগে ঝরে যায় উল্লাস।

সহায় দস্তানা লুটিয়ে করে ফোঁসফাস। চোখ ছিটকে পড়ে পিংপং বলের ছুটন্তি নিয়ে।

তখন পৃথিবীর মানুষ হয়ে বোঝা যায়, তুমি কোনো এক হত্যা-জগতের রাহুত আধখাওয়া ফলের

আবেদন দেখেছ অথচ বুঝতে চাইছ না ফুলের মতো সম্ভাবনাগুলোও ফোটাতে পারে তারাকথা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *